• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ১১:৪৫ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ব্রজেন্দ্রগঞ্জ রাম চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় দিরাইয়ে নুরুল হুদা মুকুট ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন মাহমুদুল হাসান চৌধুরী সিরাজের ঈদ শুভেচ্ছা সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু’র ঈদ শুভেচ্ছা আলহেরা জামেয়া ইসলামিয়া ফাজিল(ডিগ্রি) মাদ্রাসায়, ১মাস কুরআন প্রশিক্ষণ শেষে পুরস্কার বিতরণ দিরাইয়ে বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আজমল হোসেন চৌধুরী জাবেদের উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিল সিলেট মহানগর ৯ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ইফতার বিতরণ মুক্তি পেলো আশিক সরকারের নতুন গান ‘ভুইল না আমায়’ ব্রজেন্দ্রগঞ্জ স্কুলের সভাপতি হলেন আজিজুল

দোয়ারাবাজারে একযুগে হয়নি ১৯ কিলোমিটার রাস্তার সংস্কার কাজ:দূর্ভোগ চরমে

সোহেল মিয়া,দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি:-
প্রকাশিত: বুধবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২১

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলাধীন পান্ডারগাঁও ইউপির বড়কাপন ভায়া শ্রীপুরবাজার রাস্তার বেহাল দশার কারনে জন-দূর্ভোগ চরমে পৌছেছে। দীর্ঘ এক যুগেরও বেশী সময় ধরে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে সীমাহীন ভোগান্তির মধ্যদিয়ে চলছেন এলাকার মানুষজন।

২০০৪-৫ অর্থবছরে নির্মিত প্রায় ১৯ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের বিপুল জনসম্পৃক্তপূর্ণ এই অবহেলিত রাস্তাটির দুর্গতি বলতে গেলে শুরু থেকেই জলসী এবং কপলা ব্রীজের এপ্রোচের কাজ এ পর্যন্তই অসম্পূর্ণ। গোজামিল আর টিপা-তালির এপ্রোচ দিয়েই যানবাহন চলছে । ২০০৯ সালে রাস্তাটির সংস্কার কাজ হলে ও বছর না পেরুতেই দেখাদেয় শতাধিক খানা খন্দে। শ্রমিকরা তাদের ঘাম-ঝড়ানো অর্থ দিয়ে প্রতিবছর ১/২ বার রাস্তার ভাঙ্গাগড়া মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করে থাকেন।

শ্রীপুরবাজার স্ট্যান্ডের মালিক সমিতির সেক্রেটারি ফরিদ আহমদ ও শ্রমিক সংগঠনের সেক্রেটারি মকদ্দুছ আলী জানিয়েছেন এ বছরের ছয় মাসেই তারা লক্ষটাকার কাজ করেও কোন কুল-কিনারা পাচ্ছেন না। ছাতকের জাউয়া বাজার ইউনিয়ন, দক্ষিন সুনামগঞ্জের পূর্বপাগলা ইউনিয়ন এবং দোয়ারাবাজার উপজেলার দোয়ারাসদর, পান্ডারগাও, মান্নারগাও, দোহালিয়া ইউনিয়ন সহ আশপাশের বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের কয়েক লক্ষ মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। জনবহুল এই রাস্তাটির সাথে অত্রাঞ্চলের মানুষের আত্মার সম্পর্ক হয়ে গেছে। বড়কাপন বাজার কপলা বাজার, শ্রীপুরবাজার, মঙ্গলপুর বাজার, মজুরবাজার,বিয়ানী বাজারের মত বানিজ্যিক এরিয়ার বুকচিড়ে চলমান এই রাস্তার সাথে হাজার হাজার ব্যবসায়ীর ব্যবসা-বাণিজ্য জড়িত। এই ব্যবসা-বানিজ্যের সাথে সম্পৃক্ত তিনটি উপজেলার কয়েক লক্ষ জনতা। এ রাস্তার কারনেই উপরোক্ত বাজারগুলো রাতারাতি উন্নতির ছোঁয়া পেয়েছে। বেড়েছে জায়গা-জমি ও জীবন-যাত্রার মান। এ রাস্তাকে কেন্দ্র করে হাজার শ্রমিকের আত্ম-কর্মস্থান হয়েছে। চলছে শতশত সিএনজি, লেগুনা,অটো-টেম্পু, অটো-রিক্সা সহ বিভিন্ন যাত্রীবাহী ও মালবাহী যানবাহন। এই ১৯ কিলোমিটার রাস্তায় ৩টি শ্রমিক সংগঠন,২টি মালিক সমিতি জোরেসুরেই চলছে।

বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর শিক্ষা,চিকিৎসা, আত্মীয়তাসহ সিংহভাগ চলাচল এ পথ দিয়েই সম্পন্ন হয়ে থাকে।
রাস্তার ভগ্নদশার কারণে অনেক মূল্যবান গাড়ি কিছু দিনের মধ্যেই লক্কর-ঝক্কর হয়ে যায়। যে কারনে এ রোডে উন্নত মানের গাড়ি কেউ নামাতে চায়না। অপর দিকে একই কারনে অন্য রোডের চেয়ে এ রোডে গাড়ি ভাড়াও বেশী।

শ্রমিক সংগঠন শ্রীপুর বাজার এর সাবেক সেক্রেটারি আলী আফরান জানিয়েছেন, রাস্তার কাজ সংস্কার করা হলে যাত্রীসেবার মান বৃদ্ধি সহ ভাড়া বিবেচনা করা হবে। মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজে দোয়ারা, সিলেট, সুনামগঞ্জে যাতায়াতের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি অযত্ন আর অবহেলায় পড়ে আছে বছরের পর বছর ধরে। এমপি মহোদয়ের নিকট আমাদের দাবী যথাশীঘ্রই রাস্তাটির কাজ শুরু করে আমাদের যাতায়াত ব্যবস্থার উন্নতি করুন।

স্থানীয়রা আরও বলেন, পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যগন সুদৃষ্টি দিয়ে সাময়িকভাবে হলেও সিএনজি চলাচলের উপযোগী করে দিলে। যাতায়াতকারীদের ভোগান্তি কিছুটা হলেও দূর হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী সাদিরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,
শক্তিশালী করণের আওতায় সংস্কারের জন্য এ রাস্তাটি প্রক্রিয়াধীন আছে। কবে কাজ শুরু হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একটি বাজেটে রাস্তাটির সংস্কারের কথা থাকায়” আমরা নতুন কোনো বাজেটে রাস্তাটি সংস্কারের অনুমোদন আনতে পারছিনা। রাস্তাটি সংস্কারে দু’বছরের ও অধিক সময় লাগতে পারে।

এব্যাপারে নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহিদ বলেন, রাস্তাটি মেরামত করা অতিব জরুরী। আমরা এমপি মহোদয়ের সাথে আলোচনা করেছি। এমপি মহোদয় অতিদ্রুত রাস্তা ও ব্রিজটি মেরামত করনের কাজ শুরু করবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category